Cookie Policy          New Registration / Members Sign In
PrabashiPost.Com PrabashiPost.Com

সূর্যস্নাত ব্রিটেন

পরিসংখ্যান বলছে, এবারে ব্রিটেনে যা গরম পড়েছে গত ছ’বছরে তা সর্বাধিক । এই রেকর্ড তাপমাত্রা’র সাথে পাল্লা দিয়ে নতুন রেকর্ড fan বিক্রিতেও ।

Tirthankar Bandyopadhyay
Sat, Jul 20 2013

About Tirthankar

Tirthankar has spent much of his professional life working for the BBC. He is the editor of Prabashi Post.


More in Views

An Enigmatic Beauty

লিস্টিকেল

বরিশালের বাঙাল

My many Kolkata

 
বুক ফাটলেও রোদ ওঠে না বলে যে দেশ নিয়ে অনুযোগের অন্ত নেই, সেই ব্রিটেন এখন পুড়ছে গন গনে রোদে । এবারে আর গরম পড়বে না বলে যাদের হা-হুতাশের শেষ ছিল না তাদেরই এখন হাঁশফাঁশ অবস্থা । আমজনতা এখন স্বল্পবসন আর রোদচশমা পরে হয় বিচ বা পার্কে যাচ্ছেন গরম থেকে নিস্তার পেতে ।

হাঁপাতে হাঁপাতে ছেলেকে নিয়ে স্কুল থেকে ফিরছিলেন সুদেষ্ণা রায় । কপালের ঘাম মুছতে মুছতে বললেন, “গরম থেকে বাঁচতে বিলেতে আসা । আর এখানেই কিনা এ’রকম অবস্থা ।” সুদেষ্ণা’র ছেলে সৌম্য কিন্তু ভীষণ খুশি । এমনিতেই দিনগুলো এখন অনেক লম্বা তার ওপরে এরকম গরম, তাই স্কুলের পরে অনেকটা সময়ই কাটছে বাড়ির বাইরে । অতএব পড়াশোনা কম আর খেলা বেশি ।

“আর ক’দিন বাদেই স্কুল ছুটি তারপরে দেশে যাওয়া । আর আগে এই তাপপ্রবাহ কলকাতার গরমের সাথে মানিয়ে নিতে সাহায্য করবে,” হাসতে হাসতে বললেন আরেক বঙ্গললনা ।

গরমের সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে পাখার চাহিদাও । London School of Economics-এর লাইব্রেরিতে তরুণ গবেষক গৌতম সেন কাজ ছেড়ে তখন ইন্টারনেটে fan খুঁজতে ব্যস্ত । পাশে গিয়ে দাঁড়াতেই বললেন, “আমার স্ত্রী রাতে ঘুমোতে পারছে না । আর তা নিয়ে অশান্তির শেষ নেই । আজ আর fan না নিয়ে বাড়ি ফেরার জো নেই । অথচ সারা লন্ডন শহরে প্রায় কোনো দোকানেই fan নেই । বিলেতে এসে যে গরম নিয়ে এমন ঝামেলায় পড়তে হবে ভাবিনি ।” গৃহশান্তি বজায় রাখতে অগত্যা ঐ তরুণ গবেষককে Tottenham Court Road থেকে বাড়তি দাম দিয়ে fan কিনতে হল ।

Southend on Sea-র শ্যামল সরকারের অবশ্য ও’সবের পরোয়া নেই । কাজ থেকে ফিরেই ফি সন্ধ্যায় ঢুঁ মারছেন পাড়ার pub-এ । সেখানে chilled beer-এর গ্লাসে চুমুক দিতে দিতে চলছে দেদার আড্ডা আর ফুটবল নিয়ে জোর আলোচনা । “রাতে যখন বাড়ি ফিরি তখন কী গরম আর কী ঠান্ডা !”

এবারের তাপপ্রবাহে ব্রিটেনে কয়েকশো লোক মারা গেছেন । সরকারের পক্ষ থেকে সতর্কবার্তাও জারি করা হয়েছে । কিন্তু তা নিয়ে বেশিরভাগ লোকেরই কোনো ভ্রূক্ষেপ নেই । তাঁদের কথা, “আগে তো রোদ-টা চুটিয়ে উপভোগ করি, পরের কথা পরে ভাবা যাবে !”

পরিসংখ্যান বলছে, এবারে ব্রিটেনে যা গরম পড়েছে গত ছ’বছরে তা সর্বাধিক । এই রেকর্ড তাপমাত্রা’র সাথে পাল্লা দিয়ে নতুন রেকর্ড fan বিক্রিতেও । লন্ডনে Tube-এ যখন যাতায়াত করাই দায় তখন একটু শীতলতার সন্ধানে হাজার হাজার স্বল্পবসনা ভিড় জমিয়েছেন পার্কে, সমুদ্র তীরে আর swimming pool-এ । রোদের উষ্ণতার পাশাপাশি শান্তির শীতলতা – সবটুকুই যে চেটেপুটে উপভোগ করতে হবে । কোনো কিছুই এতটুকুও ছাড়া যাবে না ।

Andy Murray-র Wimbledon বিজয়ের পরে ব্রিটিশ জনতা এখন গরমে মেতেছে । তাপমাত্রার রেকর্ড ভাঙাগড়ার পরে চারপাশটা যখন একটু ঠান্ডা হবে তখন সবার নজর গিয়ে পড়বে ব্রিটিশ রাজপরিবারের আসন্ন নতুন অতিথির দিকে । Prince William আর Kate Middleton-এর প্রথম সন্তানের পৃথিবীর আলো দেখার সময় আগত । এখন শুধু সময় অপেক্ষার । আর সেই অপেক্ষার ক্ষণটুকুও উপভোগের ব্যবস্থা করে দিল এই রেকর্ড গরম ।

Please Sign in or Create a free account to join the discussion

bullet Comments:

 

 

  Popular this month

 

  More from Tirthankar


PrabashiPost Classifieds



advertisement


advertisement


advertisement